আত্ম বিবেচনা একটি পর্যালোচনা | Self Consideration A review

আত্ম বিবেচনা একটি পর্যালোচনা Self consideration | A view

উদ্দেশ্য পর্যালোচনা 

আমরা জীবনে অনেকবার নিজের প্রয়োজনের তাগিদে অন্যের সাথে বন্ধুত্ব করি। তারপর হয়তোবা কোন কারনে স্বার্থের দরকষাকষিতে আমরা একে অপরের শত্রু হয়ে উঠি। জীবন কিন্তু তার নিজের গতিতে চলতে থাকে। আবারো বন্ধুত্ব হয় আবারও হয়তো সম্পর্কের মাঝে চিড় ধরে। কখনো বা সম্পর্কের দরকষাকষিতে আমাদের অস্তিত্বই শেষ হয়ে যায়। তবুও মানুষ এমনি করেই বাঁচে। কেউ ই চির মোহময় জীবনের আলিঙ্গন থেকেও দূরে ঠেলে রাখতে পারেনা। তাই প্রয়োজন – আত্ম বিবেচনা | একটি পর্যালোচনা

Cov-19 situation এর পর প্রিয়জনের বেদনা মানুষকে বার বার কাঁদাচ্ছে। মানুষ চেষ্টা করেও স্বজন হারানোর বেদনা কে ভুলতে পারছে না। অনেক কাছের মানুষগুলো, প্রানের প্রিয় অধিক মানুষগুলো একে একে দূরে সরে গেল। এক নিমিষে এক মুহূর্তের মাঝে সব আনন্দ গ্লানি তে পরিণত হল। সত্যি পৃথিবী হয়তো বেঁচে থাকবে কিন্তু মানুষের মনে বেঁচে থাকা গ্লানির বেদনা কোনদিনও মুছে যাবেনা।

স্বর্গীয় অনুভূতি

মানুষের জীবনে ভালোবাসার আবির্ভাব খুব গোপনে হয়। মানুষ কখনো কোন সময় বুঝে উঠতে পারেনা কখন তার ভালো লাগার মানুষটি তার মনের গভীরে ঘর বেঁধে নেয়। সে এক স্বর্গীয় সুখের অনুভূতি, যাকে কিনা ভাষায় করে ব্যক্ত করা খুব কঠিন। মানুষ এভাবেই চলতে থাকে আপন মনে নিজের ভালবাসার উপর ভর করে। মানুষের জীবনের জীবন বসন্ত একবারই আসে কিন্তু তার প্রভাব সারা জীবন চলতে থাকে।

সময় এর প্রভাবে কিংবা পরিস্থিতির খাতিরে মানুষ এমনভাবে পাল্টে যায় যে মানুষের মনে আর ভয় বলে কোন জিনিস থাকে না । ভয় জিনিসটা মানুষের একটা সময় পর্যন্ত কাজ করে যতক্ষণ না মানুষ বাস্তবের সম্মুখীন হয়। বাস্তব যখন মানুষের মুখোমুখি হয় তখন আর মানুষের মনে ভয় থাকে না। আমরা তাকে অভিজ্ঞতা বলেও কিছু জিনিস বলতে পারি। কী আশ্চর্য না পৃথিবী এবং তার মানুষ আরো বেশি আশ্চর্যের কারণ।

তপ্ত মরু ভূমিতে যেমন জলের কোন অস্তিত্ব নাই সেভাবেই মানুষের অভিজ্ঞতা কিংবা অস্তিত্বের সামনে পৃথিবীর সকল সমস্যাই খুব ছোট্ট। সমস্যা মানুষের কাছে পাহাড় হয়ে আসে ধীরে ধীরে খেয়েনি হয় মিশে যায় মানুষের অস্তিত্বের মাঝে।

অস্তিত্ব সাধনা

পৃথিবীর সমস্ত সমস্যাকে অতিক্রম করে, অসম্ভবকে সম্ভব করে মানুষ নতুনের সন্ধানে সৃষ্টি করে নিজের নতুন অস্তিত্বের। হাজার বিকট পরিস্থিত মানুষ থেমে থাকতে চায় না। যেন ধ্বংস হওয়া সৃষ্টির মাঝে মানুষ দেওয়াল হয়ে দাঁড়িয়ে থাকে কখনো ধ্বংস হয়ে মিলিয়ে যায় কালের খাতায় আবার কখনো অবস্থিত হয় বেঁচে রয় আজীবন ধরে। এখানেই মানুষের অস্তিত্বের সাধনা এবং সার্থকতা।

মানুষের জীবনের সংগ্রামের মুহূর্তটা খুব কঠিন। অনেক চেষ্টা করেও মানুষ সংগ্রামের মুহূর্ত থেকে বেরিয়ে আসতে পারে না, সেই সংগ্রাম পৃথিবীতে বেঁচে থাকার জন্য হোক কিংবা নিজের অস্তিত্ব বিস্তারের জন্য হোক। পারিপার্শ্বিক পরিস্থিতি আমাদের বাধ্য করে আমরা চোখ বুজে অনেক কিছু সহ্য করতে পারিনা। প্রতিবাদ কখনো সুফল নিয়ে আসে আর কখনো প্রতিবাদ প্রশ্ন হয়ে নিজের কাছেই ফিরে আসে। তখন শুরু হয় সংগ্রাম।

আলোচনা,সংবাদ অথবা প্রতিবাদ যাই হোক না কেন এটা মানুষের জীবনে এক সতস্ফুর্ত আত্ম উপলব্ধি I আবার হয়তোবা নতুন কোন কিছু সন্ধানের প্রয়াস মাত্র। তাই কোনো প্রতিবাদ কে খাটো করে দেখতে নেই প্রতিবাদ কে সবসময় সম্মান করে এগিয়ে যেতে হয়। প্রতিবাদ কে যদি কেউ উপেক্ষা করে তখন প্রতিবাদ একদিন নিজেই প্রশ্ন হয় মহিরুপ আকার ধারণ করে I আমাদের সমস্ত পথ অবরোধ করে নিজের সামনে দাঁড়িয়ে থাকবে। তখন কেউ তার সমাধান কেউ খুজে পাবে না। এটা প্রকৃতির খুব সাধারন এবং বাস্তবিক নিয়ম।

By Piklu Chanda

My Life My Story

আত্ম বিবেচনা একটি পর্যালোচনা | Self Consideration A review

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *