Poetry

Aguntuk আগন্তুক Piklu Chanda

Aguntuk Piklu Chanda

Aguntuk
Piklu Chanda
আগন্তুক

কে তুমি দাঁড়ায়ে আছো হে ওপারে-
থেকো না আর বসে দ্বারে!
কিসের সন্ধানে তুমি বসে আছো-
থেকো না আর বসে দ্বারে।
কত আর্তনাদ কত হাহাকার
কাতর মৃত্যু-মিছিল!
বিষন্ন প্রকৃতি নিস্তেজ প্রতাপ
সবকিছু গরমিল।

কুণ্ঠিত রাত্রির, লুণ্ঠিত দিবস-
এ কিসের প্রাদুর্ভাব!
কাছে ছিল যারা দূরে গেছে আজ
জবাব চাই জবাব?
নিঝুম প্রান্তর কোলাহল শেষ
নেই আনন্দ উল্লাস।
যারা জেগে ছিল তাদের ঠিকানা
আজ কি মৃত্যুর দাস!

যত হানাহানি মুক্তির সংগ্রাম
আছে কি ঠাই পালাবার!
রাত্রির আঁধার জ্যোৎস্নার চাঁদ
শ্রেষ্ঠ সৃষ্টি বিধাতার।
পরাভূত আজ মানব সমাজ
নিজের সৃজন তরে।
জাগিছে পিশাচ দিতে হবে দান
সৃষ্টির বিনাশ করে।

শেষ বলিদান মাগিছে আবার
ঠাই নাই দাঁড়াবার!
বিকশিত প্রাণ নিবেদিত আজ
শেষ কিরণ আশার।
কে তুমি দাঁড়িয়ে আছো আগন্তুক?
করো অঙ্গিকার আজ-
দিতে বলিদান হও আগুয়ান
ফিরাতে হারানো রাজ।

পিকলু চন্দ
১২.০৪.২০২০.

( Aguntuk আগন্তুক Piklu Chanda  The poem is written during the time of pandemic situation. It’s all about the fear of human minds as they are facing. Aguntuk আগন্তুক Piklu Chanda..is also the situation to describe the grief of human beings, about the uncertainty of life, when a man is a helpless condition waiting for his turn..when corona will come and grasp. As the coronavirus pandemic rapidly sweeps across the world, it is inducing a considerable degree of fear, worry, and concern in the population at large and among certain groups in particular, such as older adults, care providers, and people with underlying health conditions. )

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *